কুয়েতে মানব পাচার, অভিযোগের তীর এমপি পাপলুর দিকে

ক্যাটাগরি: অপরাধ, জাতীয়, প্রবাস, শিরোনাম, সর্বশেষ-সংবাদ

Posted: February 13, 2020 at 5:41 pm

কুয়েতে মানব পাচার, অভিযোগের তীর এমপি পাপলুর দিকে-Digital Khobor

কুয়েতে অর্থ ও মানব পাচার এবং ভিসা জালিয়াতি নিয়ে ব্যাপক অভিযোগের ভিত্তিতে এক বাংলাদেশি নাগরিককে গ্রেফতার করেছে দেশটির সিআইডি। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। তবে ওই বাংলাদেশির পরিচয় জানা যায়নি। ইতিমধ্যেই এই খবর নিয়ে কুয়েতের জাতীয় দৈনিক আরব টাইমস সহ বেশকিছু পত্রিকায় লিড নিউজ এসেছে।

আরব টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, এই ঘটনায় মোট তিনজন জড়িত ছিলেন। এদের মধ্যে একজনকে গ্রেফতার করা সম্ভব হলেও সন্দেহভাজন বাকি দু’জন পালিয়ে বাংলাদেশে চলে এসেছে। যে দুজন বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন তাদের মধ্যে একজন বাংলাদেশের সংসদ সদস্য এবং একটি ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য বলেও দাবি করা হয়েছে ওই প্রতিবেদনে। তার নাম উল্লেখ করা না হলেও কুয়েত প্রবাসীরা বলছেন এটি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সাংসদ কাজী শহীদ ইসলাম পাপলু। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে, এমপি পাপলু’র কোম্পানিতে প্রায় ১৮,০০০ হাজার বাংলাদেশী শ্রমিক কাজ করে। এদের বেতন না দেওয়াতে সম্প্রতি শ্রমিকরা রাজপথে নেমে আসে।

আরব টাইমসের সূত্রে আরও জানাগেছে, ওই তিনজনের দলটি অনেকদিন ধরেই অর্থ ও মানব পাচার এবং ভিসা জালিয়াতির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। আল কাবাস ডেইলির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের তিনটি বড় কোম্পানির গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন তারা। বড় অংকের অর্থের বিনিময়ে বাংলাদেশ থেকে ২০ হাজারের বেশি বাংলাদেশিকে শ্রমিক হিসেবে কুয়েতে নিয়ে গেছেন তারা। এই শ্রমিকদের কুয়েতে পাঠানোর বিনিময়ে তারা ৫০ মিলিয়ন কুয়েতি দিনার যা বাংলাদেশী টাকায় ১ হাজার ৩শ ৯৮ কোটি টাকারও বেশি অর্থ নিয়েছেন।

এই ব্যক্তি প্রায়ই বাংলাদেশ-কুয়েত যাতায়াত করেন বলে উল্লেখ করা হলেও সম্প্রতি তিনি কখনোই ৪৮ ঘণ্টার বেশি কুয়েতে অবস্থান করেননি। একটি সূত্র জানিয়েছে, ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টের (সিআইডি) সদস্যরা তদন্ত করতে পারে এমন খবর জানতে পেরেই ওই এমপি গত সপ্তাহে কুয়েত ছেড়ে দেশে চলে আসেন।

অপরদিকে, প্রায় পাঁচ মাস ধরে ওই শ্রমিকরা বেতন পাচ্ছেন না। সরকারিভাবে যাচাই-বাছাইয়ের সময় ওই শ্রমিকদের পাচারের বিষয়টি ধরা পড়ে। সে সময়ই কর্তৃপক্ষ জানতে পারে যে, এই শ্রমিকরা ভিসা জালিয়াতির শিকার। এছাড়া অপর সন্দেহভাজন ইউরোপের কোনো দেশ পালিয়ে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। ওই ব্যক্তি একাই প্রায় সাত হাজার কর্মীকে কুয়েতে নিয়ে গেছেন বলে সন্দেহ কুয়েত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের।

 

ডিজিটাল ডেস্ক  

ad

spellbitsoft

YOUTUBE-DIGITAL-KHOBOR

আর্কাইভ

April 2020
S S M T W T F
« Mar    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  
%d bloggers like this: