শেষ হলো বুয়েটে আরবান থিংকারস্ ক্যাম্পাস-২০১৯

ক্যাটাগরি: জাতীয়, শিরোনাম, সর্বশেষ-সংবাদ

Posted: December 8, 2019 at 5:44 pm

শেষ হলো বুয়েটে আরবান থিংকারস্ ক্যাম্পাস-২০১৯ -Digital Khobor

শেষ হলো বুয়েটে আরবান থিংকারস্ ক্যাম্পাস-২০১৯। বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) ক্যাম্পাসে তিন দিনের ‘আরবান থিংকারস ক্যাম্পাস’ সম্মেলন আজ শেষ হয়েছে। গত শুক্রবার নগর পরিকল্পনাবিদ, স্থপতি, পরিবেশবিদ এবং নগরায়ণ বিশেষজ্ঞদের নিয়ে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান।

এ বছর ইউ টি সি ২০১৯ এর প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘অ্যাপ্রোচ টু ইন্টার-স্কেলার রেসিলিয়েন্স-সেটেলমেন্ট লিংকেজেস’। এর প্রেক্ষিতে তিনটি বিষয়বস্তুর আলোকে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়, ‘হাউজিং ও সেটেলমেন্ট’, ‘আরবান ডিজাইন ও ল্যান্ডস্কেপ’ এবং ‘এনভায়রনমেন্ট ও এনার্জি’।

একই সাথে গোলটেবিল বৈঠকের মাধ্যমেও গ্রাম থেকে নগর পর্যায়ে সমন্বিত পরিকল্পনা রেসিলিয়েন্স সামর্থ্য তৈরির মাধ্যমে বাংলাদেশকে ২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ইউএন-এসডিজি ২০৩০ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে পরিণত করার সক্ষমতা অর্জনের বিষয়ে মতামত প্রদান করা হয়।

ইউএন-হাবিট্যাট এর আওতাধীন ওয়ার্ল্ড আরবান ক্যাম্পেইন (ডাবিøউইউসি)-এর সহযোগী সদস্য হিসেবে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট), নিজস্ব ক্যাম্পাসে টানা তৃতীয়বারের মত আয়োজন করলো ওয়ার্ল্ড আরবান ক্যাম্পেইন। স্থাপত্য বিভাগ, বুয়েট এর আয়োজনে ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ তারিখে ইউটিসি-বুয়েট ২০১৯ শীর্ষক অনুষ্ঠানটি বিভাগ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের আহবায়ক বুয়েটের স্থাপত্য বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডঃ নাসরীন হোসেন সমাপনী অনুষ্ঠানে ইউ টি সি-বুয়েট ২০১৯ এর সারাংশ উপস্থাপন করেন। সমাপনী দিনের প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি বিষয়ক সাবেক মুখ্য সমন্বয়ক জনাব মো. আবুল কালাম আজাদ।
এছাড়াও ইউএনডিপি বাংলাদেশের আবাসিক প্রতিনিধি জনাব সুদীপ্ত মুখার্জি, বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ প্ল্যানার্স (বিআইপি)-এর সাবেক প্রেসিডেন্ট ড. এ কে এম আবুল কালাম সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন স্থাপত্য অধিদপ্তরের প্রধান স্থপতি এ এস এম আমিনুর রহমান।

এবারের সম্মেলনে গ্রাম থেকে নগর পর্যন্ত পরিবেশগত দুর্যোগ, ঝুঁকি মোকাবেলায় সকলের অংশগ্রহণ, আচরণগত পরিবর্তন এবং জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা সহ বেশ বেশ কিছু পদক্ষেপ ঘোষণা করা হয়।

এবারের সম্মেলনে স্থাপত্য অধিদপ্তর, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন, রাজউক, নগর উন্নয়ন অধিদপ্তর, এলজিইডি, বিশ্ব ব্যাংক, হ্যাবিট্যাট ফর হিউম্যানিটি বাংলাদেশ, ইডকল, এইচ বি আর আই, হাউজ বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন, বাংলাদেশ হাউজিং ফোরাম, ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অব আর্কিটেকস্ (ইউআইএ), ইন্সটিটিউট অফ আর্কিটেক্ট বাংলাদেশ (আই এ বি), বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অফ প্ল্যানার্স (বি আই পি), বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), প্রথম আলো, ওয়ার্ক ফর বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় অংশগ্রহণ করেছে।

 

ডিজিটাল খবর 

spellbitsoft

YOUTUBE-DIGITAL-KHOBOR

আর্কাইভ

January 2020
SSMTWTF
« Dec  
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
%d bloggers like this: