গত তিন মাসে সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা

ক্যাটাগরি: অর্থ-বানিজ্য, কর্পোরেট, জাতীয়, প্রবাস, শিরোনাম, সর্বশেষ-সংবাদ

Posted: December 7, 2019 at 2:23 pm

রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা-Digital Khobor

গত তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর-২০১৯) সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলারের বেশি রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এই অঙ্ক গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ১৬ দশমিক ৫৮ শতাংশ বেশি। আর সদ্য সমাপ্ত সেপ্টেম্বর মাসে ১৪৬ কোটি ৮৪ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স এসেছে দেশে।

তবে ২০১৮ সালের নভেম্বরের তুলনায় এ বছরের নবেম্বরে প্রবাসী আয় বেড়েছে। গত বছরের নভেম্বরে দেশে প্রবাসী আয় ১১৮ কোটি ডলার। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে প্রবাসী আয় বেড়েছে ৩২ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে নভেম্বর সময় ৭৭২ কোটি ডলার প্রবাসী আয় এসেছে। আগের বছরের এ সময়ে এসেছিল ৬২৯ কোটি ডলার। এ হিসাবে ৫ মাসে প্রবাসী আয় বেড়েছে ১৪৩ কোটি ডলার, যা শতকরা হিসাবে প্রায় ২৩ শতাংশ।

এর আগে গত মে মাসে রোজার ঈদকে সামনে রেখে ১৭৪ কোটি ৮১ লাখ ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিল প্রবাসীরা। যা ছিল মাসের হিসাবে বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। এরপর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছিল জুলাই মাসে, ১৫৯ কোটি ৭৭ লাখ ডলার। তৃতীয় সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এসেছিল ২০১৮ সালের মে মাসে ১৫০ কোটি ৫০ লাখ ডলার।

বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তারা জানান, মূলত প্রণোদনা দেওয়ার সুখবরে বাজেটের পর থেকেই রেমিট্যান্স বাড়ছে। মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের অর্থনীতি চাঙ্গা করতে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সবমিলিয়ে আগের চেয়ে বেশি অর্থ পাঠাচ্ছেন প্রবাসীরা। এদিকে রেমিট্যান্স বাড়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের বিদেশি মুদ্রার স্থিতি বা রিজার্ভও ভালো অবস্থানে রয়েছে। সর্বশেষ রিজার্ভের পরিমাণ ছিল ৩১ দশমিক ৮৫ বিলিয়ন ডলার।

আরও পড়ুনঃ পুলিশ মরলে ১০ লাখ আর প্রবাসী মরলে ২ লাখ!

 

বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি নীতিমালায় উল্লেখ করেছে, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে প্রণোদনা পেতে ১ হাজার ৫০০ ডলার পর্যন্ত কোনো ধরনের কাগজপত্র লাগবে না। তবে রেমিট্যান্সের পরিমাণ এই অঙ্কের বেশি হলে প্রাপককে প্রেরকের পাসপোর্টের কপি এবং বিদেশি নিয়োগ-দাতা প্রতিষ্ঠানের নিয়োগপত্র অবশ্যই জমা দিতে হবে। আর ব্যবসায়ী ব্যক্তির ক্ষেত্রে ব্যবসার লাইসেন্সের কপি দাখিল করতে হবে। উল্লেখ্য, গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ১৬৪১ কোটি ৯৬ লাখ বা ১৬.৪২ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এই অঙ্ক আগের অর্থ বছরের (২০১৭-১৮) চেয়ে ৯ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি।

এদিকে চলতি অর্থবছরের বাজেটে প্রবাসীদের পাঠানো অর্থের ওপর ২ শতাংশ হারে প্রণোদনা দেওয়ার ঘোষণা হয়েছে। ১ জুলাই থেকে প্রবাসীরা এক লাখ টাকা পাঠালে দুই হাজার টাকা প্রণোদনা পাবেন। বাজেটে এ জন্য ৩ হাজার ৬০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

তবে ব্যাংকগুলো অক্টোবর থেকে প্রণোদনা দেওয়া শুরু করে। যদিও জুলাই থেকে আসা আয়ে প্রণোদনা পাওয়া যাচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী ২০১৭-১৮ অর্থবছরের চেয়ে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রবাসী আয়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে সাড়ে ৯ শতাংশ।

গত বুধবার সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক মালিবাগ শাখায় গেলে দেখা যায় রেমিটেন্স এর ২% প্রণোদনা নিতে বেশ ভিড়। ব্যাংকের থেকে আমাদের জানিয়েছেন, সরকারী এই ঘোষণার পর যারাই দেশে রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন, ব্যাংকের পক্ষথেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করে ২% প্রণোদনা বুঝিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

 

ডিজিটাল খবর 

spellbitsoft

YOUTUBE-DIGITAL-KHOBOR

আর্কাইভ

January 2020
SSMTWTF
« Dec  
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
%d bloggers like this: