ওমান প্রবাসীদের ভালোবাসা টাকায় কেনা যায় না: মরিসন

ক্যাটাগরি: আন্তর্জাতিক, খেলাধূলা, জাতীয়, প্রবাস, শিরোনাম, সর্বশেষ-সংবাদ

Posted: November 16, 2019 at 2:10 pm

ওমান প্রবাসীদের ভালোবাসা টাকায় কেনা যায় না: মরিসন-Digital Khobor

খেলা দেখতে আসা প্রবাসী বাংলাদেশীরা বলেন, আসলে ওমান ফুটবলে অনেক শক্তিশালী, সেই হিসেবে তাদের সাথে জয়ের আশা আমাদের ছিলনা।
আমাদের দেশ সর্বোচ্চ দিয়ে খেলেছে, জয় পরাজয়ের চেয়ে খেলা উপভোগই বড়। আমরা আজকের দিনটাকে প্রবাসের মাটিতে খুব এনজয় করেছি।

হামেরিয়া ফুটবল একাদশের আবদুল মান্নান আর তানিমের নেতৃত্বে ফুটবল প্রেমীরাও গ্যালারী কাঁপিয়েছেন পুরো ম্যাচ জুড়ে।
ম্যাচ শেষে জয় পরাজয়ের চেয়েও বহু বছর পর ওমানের মাটিতে এসে বাংলাদেশ দল খেলেছ তা দেখেই সন্তুষ্ট তারা ।

ওমানের রাজধানী মাস্কাটের সুলতান কাবুস স্পোর্টস কমপ্লেক্স দেখা হয়ে গেছে বাংলাদেশের।
গত বৃহস্পতিবার ওমানের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের ম্যাচটা প্রত্যাশিত ফল দেয়নি।
৪-১ গোলে হেরে নিজেদের গ্রুপে সবার শেষে আছে জাতীয় ফুটবল দল।
কিন্তু এমন এক দিনেই অপ্রত্যাশিত এক সাফল্য দেখিয়েছেন বাংলাদেশের সমর্থকেরা।
ওমান-প্রবাসী বাংলাদেশিদের ফুটবলের প্রতি ভালোবাসায় মুগ্ধ নিরপেক্ষ ফুটবল-বোদ্ধারা।

ম্যাচের আগেই জো মরিসনকে মুগ্ধ করে দিয়েছিলেন বাংলাদেশি সমর্থকেরা। ম্যাচ ছিল বাংলাদেশ সময় রাত নয়টায়,
কিন্তু পাঁচ ঘণ্টা আগ থেকেই স্টেডিয়ামের সামনে ভিড় জমিয়েছেন ওমান-প্রবাসী বাংলাদেশিরা।
র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৮৪-এ থাকা দলের সমর্থকদের এমন নিবেদন দেখেন মুগ্ধ হয়ে একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন মরিসন।
স্প্যানিশ লিগ দেখা বাংলাদেশি সমর্থকদের কাছে বেশ পরিচিত—ফেসবুকে লা লিগার সম্প্রচার অনুষ্ঠানের সঞ্চালক জো মরিসন।
যে অনুষ্ঠানে অতিথি বিশ্লেষক হয়ে কয়েকবার গেছেন বাংলাদেশ ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়াও।
এ অনুষ্ঠানের সুবাদে আরেকটি মুখও বেশ পরিচিত, জন বুরিজ। যদিও লা লিগার দর্শকেরা সাবেক এ গোলরক্ষককে ‘বাজি’ নামেই চেনেন।

ম্যাচ শুরু হওয়ার পর মরিসন ও বাজিকে আবারও মুগ্ধ করেছেন বাংলাদেশের সমর্থকেরা। ২৮ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার অনেকটুকু অংশ ফাঁকা ছিল কাল।
কিন্তু গ্যালারির একটি অংশ ছিল পরিপূর্ণ। বাংলাদেশের দর্শকদের জন্য ৮ হাজার আসন নির্ধারণ করা হয়েছিল।
একটি আসনও ফাঁকা থাকেনি। বাংলাদেশের সমর্থকেরা সব আসন পূর্ণ করে গলা ফাটিয়েছেন দেশের জন্য।
অন্যের মাঠে প্রতিপক্ষ দলের সমর্থকদের এমন গলাবাজিতে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলেন মরিসন ও বাজি।
ম্যাচ চলার সময়ই ফেসবুক ও টুইটারে বাংলাদেশি সমর্থকদের উল্লাসের ভিডিও দেখিয়েছেন।
সে তুলনায় ম্রিয়মাণ স্বাগতিক দর্শকদের দেখিয়েছেন। দুই দলের সমর্থকদের মধ্যে তফাৎ বুঝিয়ে দিয়েছেন এ ভিডিওতে।

টাকা দিয়েও এমন সমর্থন কেনা যায় না অ্যাওয়ে দলের পক্ষে। ওদের উল্লাস শুনুন, শুনুন!’

সে ভিডিওতেই বাংলাদেশি সমর্থক যে তাঁকে কত মুগ্ধ করেছে তা বুঝিয়ে দিয়েছেন মরিসন ও বাজি, ‘পুরো স্টেডিয়াম ভর্তি,
প্রত্যেকটা টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। দেখ, সবাই দেখ। এরা কিনা অ্যাওয়ে দল। অসাধারণ। অবিশ্বাস্য, এমন অ্যাওয়ে সমর্থক।
আর ঘরের মাঠের সমর্থকদের দেখুন (কোনো শব্দ নেই)। বাংলাদেশ, অবিশ্বাস্য। আমি স্তব্ধ হয়ে গেছি। এ সমর্থন আমাকে স্তব্ধ করে দিয়েছে।
টাকা দিয়েও এমন সমর্থন কেনা যায় না অ্যাওয়ে দলের পক্ষে। ওদের উল্লাস শুনুন, শুনুন!’

জাতীয় দলের কোচ জেমি ডেও ম্যাচ শেষে টুইট করে সমর্থকদের ধন্যবাদ দিয়েছেন,
‘ওমানে আজ রাতে যে ১২ হাজার বাংলাদেশি সমর্থক ছিলেন, সবাইকে অনেক অনেক ধন্যবাদ! আপনারা অসাধারণ।’

বাংলাদেশি সমর্থকদের নিয়ে মরিসনের উল্লাসের সেই ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন 

খেলার দিন মাস্কাটের ওয়াদি-আদি থেকে ঈসা চৌধুরী, সাইফুল, ইঞ্জিনিয়ার সাঈদ, আমরাতের ইকবাল, ইউনুস খান রুবেল, মামুনসহ একঝাঁক ফুটবল প্রেমিরা
প্রায় দুইশ ফুট লম্বা বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা নিয়ে গ্যালারিতে বসে পুরো ম্যাচ-জুড়ে করতালি আর বাংলাদেশ বাংলাদেশ শ্লোগানে মুখর করে রাখে।

 

ডেক্স রিপোর্ট 

spellbitsoft

YOUTUBE-DIGITAL-KHOBOR

আর্কাইভ

January 2020
SSMTWTF
« Dec  
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031
%d bloggers like this: