অভিবাসীদের জন্য ডিজিটাল লেনদেন সেবা

প্রবাসী বাংলাদেশি উদ্যোক্তা মেহেদী হাসান সহযোগীকে নিয়ে গড়ে তুলেছেন মাইক্যাশ অনলাইন। ছবি: সংগৃহীত।


মালয়েশিয়ায় অভিবাসীদের অর্থ পাঠানো, টিকিট, টপআপসহ নানা সেবা দিতে চালু হয়েছে অ্যাপভিত্তিক সেবা মাইক্যাশ অনলাইন। প্রবাসী বাংলাদেশি উদ্যোক্তা মেহেদী হাসান দুই সহযোগীকে নিয়ে গড়ে তুলেছেন এ সেবা। তাদের তৈরি এই সেবায় স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মোবাইল টপআপ, বাসের টিকিট কাটা এবং বিভিন্ন বিল পরিশোধ করা যায়। ২০১৬ সালে মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা ‘সিড স্টার মালয়েশিয়ায়’ সেরা হয়েছে তাঁদের এটি। ২০১৭ সালে সিঙ্গাপুর ফিনটেক ফেস্টিভ্যালে সেরা স্টার্টআপ হিসেবে ২০ হাজার ডলার পুরস্কারও পেয়েছে। এ ছাড়া মানদাতো স্টার্টআপ পুরস্কার, আভিস্কার স্টার্টআপ পুরস্কার এবং বস স্টার্টআপ পুরস্কার জিতেছে তাঁদের এই উদ্যোগ। মাইক্যাশ অনলাইন বিভিন্ন বিদেশি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে প্রায় তিন কোটি টাকা বিনিয়োগও পেয়েছে। এ বছর বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে প্রায় ২০ কোটি টাকা বিনিয়োগ নিয়ে কাজ করছে। ইতিমধ্যে দেশি–বিদেশি নানা গণমাধ্যমে তাদের সফল উদ্যোগের বিষয়টি উঠে এসেছে।

মেহেদী হাসান হোয়াটসঅ্যাপে প্রথম আলোকে বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে অভিবাসীদের লেনদেন সহজ করতে অ্যাপভিত্তিক সেবা চালু করেছেন। ঢাকায় ছোট অফিসের পাশাপাশি কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর ও অস্ট্রেলিয়ায় তাঁদের অফিস রয়েছে। তিনি উচ্চশিক্ষার জন্য ২০০৭ সালে মালয়েশিয়া গিয়ে নানা উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছেন।

মেহেদী হাসান বলেন, অনেকে কষ্ট করে মালয়েশিয়ায় এসে বাংলাদেশি প্রবাসী শ্রমিক ভাইয়েরা নানা প্রতারণার শিকার হন। কম আয়ের মানুষের জন্য স্থানীয় ব্যাংক কম টাকার অ্যাকাউন্ট চালাতে আগ্রহী নয়। তাই বাংলাদেশিদের অনেকে ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে পারছেন না। বাধ্য হয়ে তাঁদের বিকল্প পথে টাকা পাঠাতে হয়। তাঁদের জন্য ২০১৬ সাল থেকে এই অনলাইন সেবা তৈরির কাজে হাত দেন। গত বছরের নভেম্বরে ‘মাইক্যাশ অনলাইন’ নামে মালয়েশিয়ায় সিঙ্গাপুরে একটি ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন নেওয়া হয়। গত বছরের নভেম্বরে সিঙ্গাপুরে ব্যাংকিং সুবিধাবঞ্চিত অভিবাসীদের অনলাইন মার্কেটপ্লেসের সুবিধা দেওয়ার লক্ষ্যে যাত্রা শুরু ‘মাইক্যাশ অনলাইন’ সিঙ্গাপুর। এ বছরের এপ্রিল থেকে অস্ট্রেলিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের সেবা দেওয়া শুরু করে ‘মাইক্যাশ অনলাইন’ অস্ট্রেলিয়া।

মাইক্যাশের উদ্যোক্তা বলেন, ‘আমরা আরও সেবা আনছি। শিগগিরই আমরা সিঙ্গাপুর থেকে সরাসরি রেমিট্যান্স সেবা চালু করতে চাই। এ ক্ষেত্রে আমরা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমতি নেওয়ার চেষ্টায় আছি। পাশাপাশি অন্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গেও চুক্তির চেষ্টা করছি। ২০১৮ সাল থেকে ভ্যালিউ এবং মেট্রো মানির সহায়তায় মালয়েশিয়া থেকে রেমিট্যান্স পাঠানোর সার্ভিস শুরু করেছে মাইক্যাশ। এখন গ্রাহকেরা বিকাশ ছাড়াও ক্যাশ পিকআপ, ব্যাংক ট্রান্সফার করতে পারেন। এ বছরের এপ্রিলে অস্ট্রেলিয়ায় রেমিট্যান্স লাইসেন্স পাওয়ার পর থেকে অভিবাসীরা বাংলাদেশসহ আরও ৫৫টি দেশে সরাসরি রেমিট্যান্স পাঠাতে পারছেন মাইক্যাশের মাধ্যমে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Archives

August 2019
S M T W T F S
« Jul    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031